Culture

‘নয়া রূপেণ সংস্থিতা’ : যুবকল্যাণ শারদ সম্মান ২০২০

নয়া দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে এবার যুবকল্যাণ শারদ স্বীকৃতি

পল্লবী কুন্ডু : আকাশে বাতাসে ভাসছে পুজোর গন্ধ। ভোরে ঝরা শিউলি, বিকেলে পড়ন্ত রোদের আলোয় ঝলমল করা কাশের বন আর সন্ধ্যের পরে ছাতিমের ঘন্ধে বিভোর প্রকৃতি আজ জানান দিচ্ছে মা-এর আগমন বার্তা। তবে চলতি বছরে প্রতিটি পদক্ষেপেই বাঁধার সৃষ্টি করেছে অতিমারী করোনা। যার জেরে অর্থনীতি এসে দাঁড়িয়েছে তলানিতে, নেই স্পনসরশিপ। তবে এই কম বাজেট নিয়েও বেশ চমকপ্রদ, আকর্ষণীয় পুজো উপহার দিতে চায় কলকাতার পুজো ক্লাবগুলি। আর এতদিনে সমস্ত সংকট কাটিয়ে এই প্রতিকূল অবস্থা থেকে বেরিয়ে এসেছে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপূজা(Durga Puja)। একে ওপরের কাঁধে কাঁধ রেখে পুজোর অনুভূতি পাচ্ছে কলকাতার পুজো ক্লাবগুলি।

পুজোর ক্ষেত্রে একে ওপরের পরিপূরক হয়ে চললেও, সেই পুজোকে কেন্দ্র করে যে স্বীকৃতি তার ভাগ নিয়ে কিন্তু সর্বদাই একটা রেষারেষি চলে আসে। কেউ কাউকেই এক চুল অংশ ছাড়ার পাত্র নয়। আর এই প্রতিযোগিতার খাতিরেই কলকাতার পুজোর স্বীকৃতি হিসেবে অন্যতম লক্ষ্য থাকে যুবকল্যাণ শারদ সম্মান(Yubakolyan Sharad Samman)। কলকতার ছোট বড়ো সকল পুজোই আবেদন রাখে এই সীকৃতির তালিকাভুক্ত হতে। এই বছরে অক্টোবরের ৩ তারিখ থেকে আবেদন শুরু হয়, বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে ভার্চুয়ালি ফর্ম বেরোয়। আর যুবকল্যাণ শারদ সম্মানের জন্য সেই আবেদনের শেষ তারিখ আজ সন্ধ্যে ৬ টা পর্যন্ত।

যুবকল্যাণ শারদ সম্মানের এই বছর ১৭ বছরে পদার্পন। এই ডাইরির পুরোনো পাতা গুলো একটু উল্টে দেখলে এই শারদ সম্মানের পথ চলা শুরু ২০০৪ সালে। রাজ্যের প্রথম লোকায়ত্ত জাস্টিস সমরেশ ব্যানার্জী-এর হাত ধরেই শুরু হয় এই যাত্রা। তিনি ছিলেন যুবকল্যাণ শারদ সম্মানের চেয়ারম্যান। একটা ছোট শিশুকে হাত ধরে তিনিই আজ পৌঁছে দেন এই ১৭ বছরে। যুবকল্যাণ শারদ সম্মান একের পর এক সাফল্য দেখেছে ওনার সান্নিধ্যেই। যুবকল্যাণ শারদ সম্মানের সাথে থেকেছে প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক অজিত ওয়াদেকার,দিলীপ বেঙ্গসরকার,বিখ্যাত জাদুকর জুনিয়র পিসি সরকার, বলিউড অভিনেত্রী জিনাত আমান, মহিমা চৌধুরী, গ্রেসি সিং। টলিউডের অভিনেত্রী লকেট চ্যাটার্জী, পাওলি দাম, পায়েল সরকার, সুভদ্রা, চৈতি ঘোষাল, বুলবুলি পাঁজা, টলিউড অভিনেতা চিরঞ্জিত চক্রবর্তী, অর্জুন চক্রবর্তী, সাহেব চট্টপাধ্যায়, বাদশা মৈত্র, চন্দন সেন (নাট্যকার), পরিচালক সৃজিত মুখার্জী, অভিনেতা ইন্দ্রাশীষ রায়, অভিনেতা রাহুল বর্মন, নাট্যকার জ্ঞানেশ মুখার্জী, চিন্ময় রায়, দেবদুলাল বন্দ্যোপাধ্যায়, ফুটবলার সুব্রত ভট্টাচার্য, প্রশান্ত ব্যানার্জী, বিশ্বরূপ দে (সিএবি), দাবাড়ু দিব্যেন্দু বড়ুয়া এছাড়াও বিগত দিনে পুজো পরিক্রমায় আরো বেশ কিছু বিশিষ্ট মানুষকে সাথে নিয়েই চলেছে যুবকল্যাণ শারদ সম্মান।

আর এবারে বর্তমান পরিস্থিতিকে সাথে নিয়েই বদলেছে স্বীকৃতি দানের দৃষ্টিভঙ্গি। করোনা আক্রান্ত ও আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্থ আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্য কোনো উদ্যোগ নিয়ে থাকলে তবেই এবার ” যুব কল্যাণ শারদ সম্মান ২০২০ ” প্রতিযোগিতায় নথিভুক্ত করা হবে, বলেই দেওয়া হয় নির্দেশিকা। তাই এখনো যারা আবেদন করেননি তারা খুব সহজেই এবার আবেদন করতে পারেন এই নিন্মোক্ত লিংক-এর সাহায্যে https://docs.google.com/forms/d/e/1FAIpQLSf5l_Mvg4L1oJv7iTnLwp_mAQQsLNr1201uMzHzbSbzbMBIFQ/viewform . নতুন ভাবে, নতুন দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে এবারের শারদ সম্মান।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: