Big Story

মান অভিমানে মন্ত্রী লক্ষীরতন শুক্লার পদত্যাগ

ছেড়েছে দিদির আশ্রয়, তাহলে কী এবারে পদ্ম শিবিরে লক্ষ্মী দেবেন যোগ ?

দেবশ্রী কয়াল : প্রতি মুহূর্তে বদলাচ্ছে বাংলার রাজনীতি। বিধানসভা ভোটের পূর্বে চলছে দলবদলের খেলা। গত বছরে অনেকেই তৃণমূল ছেড়ে যোগ দিয়েছে বিজেপিতে। যার মধ্যে অন্যতম বড় নাম ছিল শুভেন্দু অধিকারী। যার দল ছাড়াতে তৃণমূলে দলে লাগে এক বড়সড় ধাক্কা। আর এবারে বছরের শুরুতেই আবারও বড় ধাক্কা বর্তমান শাসক দল তৃণমূলের। ভোটের একদম আগে আগেই দলের মন্ত্রিত্ব পদ ত্যাগ করলেন লক্ষ্মীরতন শুক্লা (Laxmi Ratan Shukla)। ইতিমধ্যেই তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর কাছে নিজের ইস্তফা পাঠিয়েছেন। এবং সেই ইস্তফাপত্র গ্রহণ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে দল পরিবর্তন করে তিনি অন্য জায়গায় যাচ্ছেন কীনা সেই বিষয়ে এখনও কিছুই স্পষ্ট নয়।

লক্ষ্মীরতন শুক্লা ছিলেন রাজ্যের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী। হাওড়ায় দলের জেলা সভাপতি পদেও ছিলেন। মন্ত্রিত্ব পদের সাথে সেই পদও ছাড়ছেন তিনি। মন্ত্রিত্ব এবং দলের জেলা সভাপতির পদ ছাড়লেও এখনই কিন্তু তিনি ছাড়ছেন না বিধায়ক পদ। ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব থেকে তৃণমূলের সাংগঠনিক কাজে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেন। মনে করা হচ্ছে মান অভিমানের পালা থেকেই এই ইস্তফা পত্র। তবে গুঞ্জন এবার হয়ত দিদির আশ্রয় ছেড়ে, পদ্ম শিবিরে যোগদান করবেন তিনি।

কারন মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরে পরেই ইতিমধ্যে তাকে বিজেপিতে যোগদানের আহ্বান জানিয়ছেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। স্থানীয় এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাত্‍কারে বাবুল সুপ্রিয় জানিয়েছন, লক্ষ্মী কাজের মানুষ। তৃণমূলে থেকে হয়তো তার কাজ করতে সমস্যা হচ্ছিল আর সেই কারণেই তিনি ইস্তফা দিয়েছেন। তবে কাজের মানুষ বিজেপিতে যোগ দিলে ভালো হবে বলেই মত বাবুলের। তবে এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বই সিদ্ধান্ত নেবে বলে মত তাঁর। এখন স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠছে কী হবে লক্ষ্মীরতম এর পরবর্তী পদক্ষেপ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: