Big Story

সমঝোতা আর নয়, এই মনোভাব নজর কাড়ছে সাধারণের : লাল ঝান্ডা ঘিরেছে গ্রাম থেকে শহর

বাংলার রাজনীতিতে হচ্ছে পরিবর্তন, মাথা চাড়া দিয়ে সাধারণ ধর্মঘটের মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে বামেরা

দেবশ্রী কয়াল : আজ সারা দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে বামেদের ডাকা সাধারন ধর্মঘট (Trde Unions Strike)। সকাল থেকেই দেশের নানান প্রান্তে ধর্মঘটকারীরা রাস্তায় নেমে পড়েছেন। মানুষকে এই সাধারণ ধর্মঘট পালন করার জন্যে অনুরোধ করছেন। আজ চারিদিকে কেবল লাল পতাকার ঝান্ডা উড়ছে, এক নতুন পথের দিশা দেখাচ্ছে। মানুষ জানাতে চাইছে আর সমঝোতা করে থাকতে চায় না তারা। অন্যান্য দিনের ন্যায় কিন্তু আজকের সকালের কলকাতা শহর ছিল না। রাস্তায় মানুষের সংখ্যা বেশ কম, সাথেই বেসরকারি গাড়ি ও কম। তবে বামেদের (Left Party) ডাকা আজকের এই ধর্মঘটের জেরে দফায় দফায় বিভিন্ন জায়গায় ট্রেন অবরোধের ঘটনা উঠে এসেছে। ব্যাহত হয়েছে রেল পরিষেবা। শিয়ালদা দক্ষিণ শিয়ালদা মেন এবং হাওড়া ডিভিশনে দফায় দফায় ট্রেন অবরোধ হয়েছে। যত বেলা গড়াচ্ছে ক্রমশ তত সফল হতে দেখা যাচ্ছে আজকের এই সাধারণ ধর্মঘট।

একেবারে সকালের দিকে শিয়ালদা দক্ষিণ শাখা লক্ষীকান্তপুর শাখায় অবরোধ করেন ধর্মঘটকারীরা। ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ অবরোধ করা হয় মথুরাপুর রেল স্টেশনে। এছাড়া, শিয়ালদা লক্ষীকান্তপুর শাখার দক্ষিণ বারাসাত রেল স্টেশনে সকালে ট্রেন অবরোধের দৃশ্য দেখা যায়। এর ফলে ব্যাহত হয় লোকাল ট্রেন পরিষেবা। এছাড়া নিউ ব্যারাকপুর এবং সংগ্রামপুর স্টেশন অবরোধ করেন সমর্থনকারীরা। শহরতলির পাশাপাশি শহরের মধ্যে ঢাকুরিয়া স্টেশনে রেল অবরোধ হয়।

তবে এইসব কিছুর মাঝে সবথেকে যে বিষয়টি নজর কাড়ছে তা হল মানুষের সমর্থন। বহু মানুষই কিন্তু আজকের এই সাধারণ ধর্মঘটকে জানিয়েছেন সমর্থন। বিজেপির বিরুদ্ধে এই ধর্মঘট ক্রমশ সফলতা পাচ্ছে। কেবলমাত্র শহরে না মফস্বল ও গ্রামের দিকেও মানুষের সমর্থন যাচ্ছে লাল পতাকার দিকে। বহু মানুষ বসে পড়েছেন রাস্তার মাঝে, তাদের কেবল একটাই দাবি, বাংলাতে বিজেপিকে প্রবেশ করতে দেওয়া যাবে না। যেরূপে সরকারি কেন্দ্র গুলি বেসরকারিকরণ করেন করা হচ্ছে, কৃষি আইনের মাধ্যমে কৃষি ভাইদের যেভাবে অসহায় তৈরী করতে চাইছে তা কোনোমতে হতে দেওয়া যায় না।

ইতিমধ্যেই কিন্তু আলিমুদ্দিন স্ট্রীট থেকে এন্টালি যে মূল মিছিল রয়েছে মল্লিকবাজার পর্যন্ত তা শুরু হয়ে গেছে। বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্র সকলেই পায়ে হেঁটেই শুরু করে দিয়েছে মিছিলে হাঁটা। গত ১ ঘন্টা ধরে চলছে এই মিছিল। পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকলেও কিন্তু সেই মিছিলে বাঁধা দেওয়ার জন্যে এগিয়ে আসেনি। বন্ধ রয়েছে কিন্তু রাস্তা। তৃণমূল ও বিজেপির অনেক চেষ্টার পরেও কিন্তু সফল হতে দেখা যাচ্ছে এই ধর্মঘটকে। বিমান বসুর (Biman Basu) মতে, কোথাও কোথাও স্বল্প বিক্ষোভ, দেখা দিলেও এখনও পর্যন্ত সারা ভারতবর্ষের যা রূপ তাতে বলা যায় নিশ্চিত ভাবেই সফল হতে যাচ্ছে আজকের ধর্মঘট। আজ সারা দেশ জুড়ে মানুষ যেভাবে বাড়িতে দিকে এই ধর্মঘটকে সমর্থন জানিয়েছেন তার জন্যে তাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বাম নেতারা।

অর্থাৎ বলা যেতেই পারে, মানুষ কিন্তু আর পরিস্থিতির সাথে মানিয়ে নিচ্ছেন না, বরং তার বিরোধিতা জানাচ্ছেন। আর তার প্রমাণই হয়ত আজ সকাল থেকে দেশের নানান প্রান্তে দেখা যাচ্ছে। যেভাবে ভোটের আগে বামেরা প্রস্তুতি নিয়ে ময়দানে নামছে তা দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে সাধারণ মানুষের। আর তাই তো মানুষ গতকাল থেকেই আশঙ্কা জাগিয়েছিল আজকের ধর্মঘটকে নিয়ে। অন্যান্য ধর্মঘট গুলির মতো এই ধর্মঘট মোটেও ঠুনকো নয়, বরং বেশ প্রভাব ফেলেছে তা সারা বাংলা তথা ভারতবর্ষে। যেভাবে লাল পতাকা নিয়ে বামেরা এগিয়ে যাচ্ছে তাতে বেশ অনেক মানুষের সমর্থন যোগাচ্ছে। আর এই ধর্মঘটে বামেরা যেভাবে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে তা বেশ নজর কেড়েছে গ্রাম থেকে শহরের মানুষের।

যতদিন বামেরা বাংলায় শাসক দল হিসাবে ছিল সেই সময় কিন্তু বর্তমান শাসক দল অর্থাৎ তৃণমূলকে (Tmc)অনেক ধর্মঘট করতে দেখা গিয়েছিল। তখন কিছু ঘটতে না ঘটতেই বাংলায় ধর্মঘট ডাকা হতো। কিন্তু আজ শাসক দল হয়েও বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে কিন্তু একপ্রকার দেওয়ালে পিঠ থেকে গিয়েছে তাদের। তাই যাদের বিরুদ্ধে আজকের এই ধর্মঘট তাদেরকে সরাসরি ভাবে না হলেও সমর্থন জানিয়েছে বর্তমান তৃণমূল শাসক দল। তাই বামেদের বিরুদ্ধে আজ গিয়ে ধর্মঘটকে সফল না করার কথা ঘোষণা করেছেন। মোতায়েন করেছেন অনেক পুলিশ। তবে বাস্তবে চিত্র কিন্তু তেমনটা বলছে না। কিছু জায়গায় বিক্ষোভ অবরোধের ঘটনা দেখা দিলেও সেভাবে এখনও পর্যন্ত ধর্মঘটকে মোকাবিলা করতে পুলিশদেরকে তেমন কোনো পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি। এই সাধারণ ধর্মঘটে বহু মানুষের যেভাবে সমর্থন দেখা গেছে তা এই মুহূর্তে বাংলার রাজনীতিতে ঘোরাচ্ছে এক নয়া মোড়। কিছুদিন আগেই সূর্যকান্ত মিশ্র (Suryakanta Mishra)বলেছিলেন বাংলায় বিজেপির (Bjp) বিরুদ্ধে লড়াই করতে বামেরা সক্ষম। আর আজ তাই হয়ত অনেকটা প্রমান হচ্ছে সাধারণ ধর্মঘটের মাধ্যমে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: