West Bengal

লকডাউনে শিথিলতা আসতেই বাড়ছে চোরাকারবার

বিপুল পরিমাণ মাদক ট্যাবলেট উদ্ধার করলো কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স বা এসটিএফ।

পল্লবী কুন্ডু : করোনা সংক্রমণ রুখতে যখন সারা দেশ জুড়ে সম্পূর্ণ লকডাউন চলছিল সেই সময় বিপুল পরিমানে হ্রাস পেয়েছিলো চোরাকারবার। প্রত্যেক মোড়ে মোড়ে চলছিল নাকা চেকিং, বড়ো রাস্তা ছাড়াও অলি-গলিতে চলেছে পুলিশি টহল। কার্যত কেউই চোরাকারবারের মতো ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করতে সাহস দেখায়নি। কিন্তু চলতি সময়তে শিথিলতা এসেছে কড়া নজরদারিতে সাথে বাড়ছে চোরাকারবার। আর এবার বিপুল পরিমাণ মাদক ট্যাবলেট উদ্ধার করলো কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স বা এসটিএফ। মুর্শিদাবাদের দুই কুখ্যাত মাদক কারবারিকে পাকড়াও করেই এই বিপুল পরিমান মাদক উদ্ধার হয়।

৫০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট

গোপন সূত্রে জানা যাচ্ছে, ওয়েস্ট পোর্ট থানার নিমক মহল রোডে শুক্রবার রাতে অভিযান চালায় এসটিএফ। তখনই ওই মাদক কারবারিদের কাছ থেকে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার হয়। যার ওজন সাড়ে পাঁচ কেজি। এখন ওই মাদক কোথা থেকে এল, এর পিছনে আরও কারা আছে, তার অনুসন্ধান শুরু হয়েছে। সাথে যারা ধরা পড়েছে সেই ধৃতরা হল ফারুখ শেখ ও ইসমাইল শেখ। দুজনেই মুশিদাবাদের সুতি থানা এলাকার বাসিন্দা।

এই মুহূর্তে যা সন্দেহ করা হচ্ছে তা হল, মূলত উত্তর-পূর্ব ভারতের মায়ানমার সীমান্ত দিয়েই এই মাদক দেশে প্রবেশ করছে। এবং যার এখন সব থেকে বড়ো কেন্দ্র হয়ে দাঁড়িয়েছে মহানগরী কলকাতা। লকডাউন শুরুর মুখে ও লকডাউন শুরু হওয়ার পরে কলকাতা থেকে দুই দফায় বেশ ভালো পরিমান ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার হয়। তার মধ্যে একবার তো কোটি টাকার ওপরের ইয়াবা উদ্ধার হয় এই এসটিএফের হাতেই। পুলিশ সূত্রে আরো জানা যাচ্ছে যে চলতি সময়ে এই ট্যাবলেটের চাহিদা বেশ বেড়েছে কলকাতায়। যা সরাসরি সমাজের যুব সম্প্রদায়ের ওপরেই কেউ-প্রভাব পড়ছে। তবে প্রশাসনও যথেষ্ট সচেতন এই কারবার রুখতে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: