Nation

বেকারত্বের সংখ্যা কমবে, রাজ্যের তরুণদের জন্যই সরকারি চাকরির অগ্রাধিকার : শিবরাজ সিং চৌহান

সরকারি চাকরিতে যাতে শুধু রাজ্যের তরুণদেরই অগ্রাধিকার থাকে, তার জন্য বিল পাশ করতে চলেছেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান।

পল্লবী কুন্ডু : যুবসম্প্রদায়ের জন্য কোনো কাজ নেই। পড়াশোনা করার পর উচ্চশিক্ষার ডিগ্রি হাতে নিয়ে প্রত্যেক বছর বসে থাকতে হয় দেশের লক্ষ লক্ষ ছেলে মেয়েকে। তাদের একটাই আর্জি থাকে সরকারের কাছে আর তা হলো, একটা চাকরি।পড়াশোনা করার পর সকলেই চায় প্রতিষ্ঠিত হতে। কিন্তু এখন সেই চাকরিই যুব সম্প্রদায়ের একাংশ ছেলেমেয়ে কে ঠেলে দিচ্ছে অন্ধকার দিকে। আর এই সব কিছুর পর করোনার জেরে দেশে চলতি পরিস্থিতি। ছেলেমেয়েরা কাজ পাবে কি উল্টে যারা করছে তাদের কেই ছাটাই করা হচ্ছে। প্রত্যেকদিন বাড়ছে বেকারত্বের সংখ্যা। এমন অবস্থায় নয়া পদক্ষেপ নিলো মধ্যপ্রদেশ সরকার।

সরকারি চাকরিতে যাতে শুধু রাজ্যের তরুণদেরই অগ্রাধিকার থাকে, তার জন্য বিল পাশ করতে চলেছেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান।রাজ্যের মন্ত্রী ও সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে কথা বলেছেন চৌহান। সংবাদসংস্থা এএনআইকে চৌহান জানিয়েছেন, ‘‌আমাদের সরকার আজ একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ আমরা নিচ্ছি। যাতে মধ্যপ্রদেশে সরকারি চাকরি শুধুমাত্র রাজ্যের তরুণদের জন্যই বরাদ্দ থাকে।’‌

১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবসের ভাষণেই চৌহান জানিয়েছিলেন, মধ্যপ্রদেশে সরকারি চাকরিতে রাজ্যের তরুণদের অগ্রাধিকার দেওয়ার বিষয়টি ভাবা হচ্ছে। সেকারণে রাজ্যের মানুষের তথ্য সংরক্ষণ করতে শুরু করেছে মধ্যপ্রদেশ সরকার। চৌহান বলেছিলেন, ‘‌দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর ফলাফলের উপর ভিত্তি করেই রাজ্যের তরুণদের সরকারি চাকরিতে নিয়োগ করা হবে।’‌ এমনকি ওবিসিদের জন্য সংরক্ষণ যাতে ১৪ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৭ শতাংশ করা যায়, সেজন্য আদালতে তাঁর সরকার লড়ে যাবে বলে জানিয়েছেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী।

সারাদেশের বেকারত্ব কমানো বা যুবসম্প্রদায়ের পর্যাপ্ত কর্মসংস্থান হয়তো সত্যিই কঠিন হবে কিন্তু যদি রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রী তার রাজ্যে বসবাসকারীদের কথা ভাবে তাহলে হয়তো সত্যিই এই সংকট থেকে বেরিয়ে আশা সম্ভব হবে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: