West Bengal

একুশের নির্বাচনের আগে রাজ্য এখন শিল্পময়, বড়ো সিদ্ধান্ত গ্রহণ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর

বৃহস্পতিবার নবান্নে এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, 'আগামী সোমবার তাজপুর বন্দর নিয়ে দরপত্র চেয়ে বিজ্ঞাপন দেবে রাজ্য সরকার

পল্লবী কুন্ডু : একুশে নির্বাচনের আগে একের পর এক বড়ো ঘোষণা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)-এর। এবার রাজ্যের শিল্পায়ন নিয়ে কথা বললেন। বৃহস্পতিবার নবান্নে(Nabanna) এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আগামী সোমবার তাজপুর বন্দর নিয়ে দরপত্র চেয়ে বিজ্ঞাপন দেবে রাজ্য সরকার। মোট ৪,২০০ কোটি টাকা এই প্রকল্পের খরচ ধরা হয়েছে। এতে কোনও জমি অধিগ্রহণ করা হবে না। ১৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগে এটা দেশের প্রথম গভীর সমুদ্র বন্দর। কমপক্ষে ২৫ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে এখানে।’তিনি আরো জানিয়েছেন, দেশ-বিদেশের সব সংস্থাই এই বন্দর তৈরির জন্য দরপত্র জমা দিতে পারবে। সেখানে থেকে গ্লোবাল টেন্ডারের মাধ্যমে চূড়ান্ত সংস্থা বেছে নেওয়া হবে।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন,’দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, বর্ধমান, পুরুলিয়া ও বাঁকুড়া থেকে লৌহ ইস্পাত রফতানি বাড়বে। বহু মানুষ কাজ পাবেন। এই বন্দর রাজ্যের শিল্পায়নকে নতুন পথে নিয়ে যাবে।’ সাথে রাজ্যে কোনও প্রকল্পের জন্যই জোর করে জমি কোথাও নেওয়া হবে না বলে এদিন স্পষ্ট করে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। অন্যদিকে, সিঙ্গুরের কথা মাথায় রেখে এদিন তিনি ঘোষণা করেছেন সিঙ্গুরে একটি শিল্প পার্ক। মুখ্যমন্ত্রী জানান, এখানে একটি অ্যাগ্রো-ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক তৈরি করা হচ্ছে রাজ্যের পক্ষ থেকে। তিনি এও জানান, এখানে সবরকম অত্যাধুনিক ব্যবস্থা থাকবে। যাতে এখানকার কৃষকেরা সেখানকার উত্‍পাদিত ফসল বিক্রি করতে পারেন। মোট ১১ একর জমির উপর এই পার্ক তৈরি করছে পশ্চিমবঙ্গ ক্ষুদ্রশিল্প পরিকাঠামো নিগম।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘শিল্পপতিরা যেমন জমি চাইবেন তেমনি দেওয়া হবে। প্রয়োজনে পরিকাঠামো রাজ্য সরকার তৈরি করে দেবে। এর জন্য ১০ থেকে ৩০ কাঠা পরিমাণের জমি প্লট প্লট করে দেওয়া হবে। তার জন্যও দরপত্র চাওয়া হচ্ছে।’ এছাড়াও, পানাগড় শিল্প পার্ক ধানুকা গোষ্ঠী ৩৮ একর জমিতে ৪০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করে ফুড প্যাকেজিং শিল্পের নতুন কারখানা করবে বলেই জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এসবের সাথে, নিউটাউন সিলিকন ভ্যালিতে কোনও এক বা দুই সময় নয় সারা বছর ধরে সবসময় জমি দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় উইন্ডো খুলে রাখবে হিডকো, এমনটাই জানান তিনি। এখানে ইনফোসিস, উইপ্রো আসছে সেই কথা রাজ্য সরকারকে চিঠি লিখে জানিয়েছে বলেই জানান মুখ্যমন্ত্রী।

অতএব, ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যের শিল্প সংস্থান নিয়ে বেশ কিছু বড়ো পদক্ষেপ নিতে চলেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: