Health

মাইগ্রেনের ব্যাথায় নাজেহাল? এড়িয়ে চলুন এই খাবারগুলি

চকোলেট, চিজ অতি প্রিয় খাদ্য হলেও বর্জন করুন এক্ষুনি

এ ব্যাথা কি যে ব্যাথা! যাদের মাইগ্রেনের ব্যাথা হয় তারা খুব ভালো করেই জানেন কি পরিমান কষ্ট হয় মাইগ্রেনের ব্যাথায়। অনেক সময় কিছু কিছু খাবার সেই মাইগ্রেনের উদ্দীপকের কাজ করে। জেনে নিন কোন কোন খাবার খেলে হতে পারে এই সমস্যা:

➧ অ্যালকোহল: যারা মাইগ্রেনের সমস্যায় ভোগেন তাদের প্রথমেই এড়িয়ে চলা উচিত অ্যালকোহল। বিয়ার বা রেড-ওয়াইন জাতীয় অ্যালকোহল অনেকসময় মাইগ্রেনের উদ্দীপকের কাজ করে। এগুলি খেলে অনেকসময় হ্যাংওভার থেকে মাথা ব্যাথা হয়। বিয়ার বা রেড ওয়াইন ছাড়াও অন্যান্য অ্যালকোহলেও কম বেশি মাথা ব্যাথা হয়। সুতরাং যতটা সম্ভব অ্যালকোহল এই চলাই উচিত।

➧ চিজ: অতীব লোভনীয় হলেও আপনার যদি মাইগ্রেন থাকে তবে চিজ খাওয়া থেকে আপনার দূরে থাকা উচিত। সব ধরণের চিজেই টিরামাইন নামক একধরণের উপাদান থাকে যা মাইগ্রেনের উদ্দীপকের কাজ করে। কাজেই সুস্থ থাকতে হলে এই লোভনীয় খাদ্যবস্তুটি এড়িয়ে চলাই শ্রেয়।

➧ক্যাফাইন: আজকালকার দিনে চা বা কফি খাননা এমন লোক খুব কমই আছেন। অথচ এই কফির পেছনেই লুকিয়ে আছে মাইগ্রেনের অন্যতম প্রধান উদ্দীপক ক্যাফাইন। এই ক্যাফাইন গ্রহণের ফলে কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্র এবং রক্তজালকের ওপর প্রভাব পড়ে যার ফলে তাত্‍ক্ষণিক এনার্জি বৃদ্ধি পায় এবং ঘুম কেটে যায়। কিন্তু মাইগ্রেনের সমস্যায় নিয়মিত ভুগলে ক্যাফাইন বেশি পরিমানে না খাওয়াই উচিত।

➧ চকোলেট: চকোলেটে রয়েছে ফিনেলথিলামিন নামক এক উপাদান যা মস্তিষ্কে রক্ত প্রবাহে বাধা প্রদান করে। এর ফলে বিভিন্ন উপসর্গ দেখা দেয় যা মাইগ্রেনের উদ্দীপক হিসাবে কাজ করে। এছাড়াও কিছু কিছু চকোলেটে ক্যাফাইন উপস্থিত থাকে যা মাইগ্রেনের ব্যাথা উদ্রেককারী।

➧ মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট বা এমএসজি: এমএসজি শরীরে বেশি পরিমানে গেলে তা অত্যন্ত ক্ষতিকারক। এটি বিভিন্ন প্রসেসড ফুড, ক্যান বা ফ্রোজেন ফুডে ব্যবহৃত হয় এবং স্বাদ বর্ধকের কাজ করে। এমএসজি রক্তের স্বাভাবিক প্রবাহে বাধা সৃষ্টি করে যার জেরে মাইগ্রেন অ্যাটাক হয়।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: