West Bengal

লোকাল ট্রেন পরিষেবা শুরু হলে, সকল নিয়মবিধি মেনে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া কি আদৌ সম্ভব ?

পরিষেবা নিয়ে সকল পরিকল্পনা চূড়ান্ত করতেই এ দিন রেলের সঙ্গে বৈঠকে বসছে রাজ্য

পল্লবী কুন্ডু : সম্প্রতি রাজ্যের বিভিন্ন স্টেশনে জন রোষের জেরে হাওয়া গরম। আমজনতার সাথে ক্রমশ বচসার বাঁধছে কর্তৃপক্ষের সাথে। এমতাবস্থায় হাওড়া স্টেশনে তুমুল যাত্রী বিক্ষোভ এর জেরেই এবার অবশেষে লোকাল ট্রেন নিয়ে টনক নড়ল নবান্নের(Nabanna)। আর তারপরেই সকাল, সন্ধে নির্দিষ্ট সংখ্যায় ট্রেন চালানোর প্রস্তাব দিয়ে শনিবার রাতেই রেলকে (Eastern Railway) চিঠি পাঠানো হয়েছিল রাজ্যের তরফ থেকে। কবে থেকে চালু হবে লোকাল ট্রেন পরিষেবা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাত্রী ভিড়ই বা সামাল দেওয়া হবে কীভাবে? সেই রূপরেখা চূড়ান্ত করতেই এ দিন রেলের সঙ্গে বৈঠকে বসছে রাজ্য সরকার।

আজ, মঙ্গলবার বিকেল পাঁচটায় নবান্নে এই বৈঠক হওয়ার কথা। নিয়ন্ত্রণিত ভাবে লোকাল ট্রেন পরিষেবা শুরু করার জন্য অনেক দিন ধরেই তারা তৈরি বলে রেলের তরফে দাবি করা হয়েছিল। তবে তার জন্য রাজ্য প্রশাসনের সহযোগিতা প্রয়োজন। কারণ স্টেশন এবং ট্রেনের কামরায় ভিড় নিয়ন্ত্রণই এই মুহূর্তে সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ।

তবে সংশ্লিষ্ট বিষয় গুলি নিয়ে কি করা যায়, তা নিয়েই প্রাথমিক পরিকল্পনা অনুযায়ী, লকডাউনের আগে হাওড়া এবং শিয়ালদহ থেকে মোট যে পরিমাণ লোকাল ট্রেন চলত, তার এক তৃতীয়াংশ ট্রেন চালানো হতে পারে। আবার যেভাবে মুম্বইতে লোকাল ট্রেন পরিষেবা শুরু হয়েছে, সেই পদ্ধতি করা যায় কি না, তা নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হওয়ার কথা। পাশাপাশি এও ভাবা হয়েছে, যেভাবে মেট্রো রেলে ভিড় নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে, রেলেও একই পদ্ধতি অনুসরণ করা হবে। মেট্রোর মতো লোকালে চড়ার ক্ষেত্রেও ই-পাসের ব্যবস্থা করা যায় কি না, তা নিয়েও বৈঠকে আলোচনা হবে। তবে রেলের পূর্ববর্তী ছবি যা বলছে তাতে পরিষেবা শুরু হলে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া প্রশাসনের কাছে খুব একটা সহজ কাজ হবেনা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: