Big Story

নারোদা তদন্তে চলছে বিচার কলকাতা হাই কোর্টে : Live আপডেট

জেল মুক্তি অধরা রইল আজ , কলকাতা হাইকোর্ট জুড়ে তোলপাড় বাদবিবাদে। অভিযুক্তরা হতাশ , আবারও চেষ্টা কাল !

  1. মদন মিত্র ও শোভন চট্টোপাধ্যায়ের হয়ে সওয়াল করছেন সিদ্ধার্থ লুথার , অন্য দিকে রাজ্যের দুই মন্ত্রীর হয়ে সওয়াল করছেন কংগ্রেসের মুখপাত্র এবং রাজ্যসভার সাংসদ আইনজীবী অভিষেক মনু সিঙভি।

2. নারদ মামলা শুনানি শুরু হলভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দল এবং বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে

3. মামলাটিকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার আর্জি জানানো হয়েছে ৪০৭ নম্বর ধারা অনুযায়ী

4. সিবিআইয়ের যুক্তি, এই রাজ্যে মামলাটিকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করা হতে পারে।

5. ব্যাঙ্কশাল কোর্টে ছিলেন আইনমন্ত্রী মলয় ঘটক। আবেদনে মুখ্যমন্ত্রী এবং আইনমন্ত্রীকে পক্ষ হিসেবে যুক্ত করা হয়েছে। সোমবার রাজ্যের ৪ হেভিওয়েট নেতাকে নিজাম প্যালেসে গ্রেফতার করার পর মুখ্যমন্ত্রী নিজে নিজাম প্যালেসে হাজির হয়েছিলেন।

6. এই নারদ মামলা ভিন্‌রাজ্যে সরানোর আর্জিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং আইনমন্ত্রী মলয় ঘটকের পাশাপাশি জুড়ল কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামও

7. অভিযুক্তদের সিবিআই হেফাজতে নেওয়ার দাবি জানান তুষার মেহতা। সুব্রত, ফিরহাদদের জামিনের বিরোধিতা করে সওয়াল করলেন কেন্দ্রের সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা।

8. অন্তর্বর্তী জামিনের ওপর এ ভাবে আগে মামলা হয়নি। বিনা নোটিসে কীভাবে গ্রেফতার করা হল। প্রশ্ন তুললেন অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি।

9. পাল্টা প্রশ্ন সিবিআইয়ের আইনজীবীর, মুখ্যমন্ত্রী এবং অন্য মন্ত্রীরা যে গিয়েছিলেন। তার জন্য কি আইনি কোনও অনুমতি নিয়েছিলেন?

10. আদালতে জানালেন অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি।সুব্রত মুখোপাধ্যায় ৪৫ বছরের বেশি সময় ধরে বিধায়ক। ৭৫ বছরের বেশি বয়স হয়েছে। কি ভাবে কোভিড পরিস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্টের নিয়ম অনুযায়ী আটকে রাখা ?

11. আদালতে প্রশ্ন অভিষেকের।আমি মানছি ওই দিন নিজাম প্যালেসে যা হয়েছিল। তা ঠিক হয়নি

12. আদালতে প্রশ্ন অভিষেকে মনু সিংভি , আমি মানছি ওই দিন নিজাম প্যালেসে যা হয়েছিল। তা ঠিক হয়নি। কিন্তু এরকম ঘটনা কি ভারতে প্রথম?

13. কি ভাবে দল বেঁধে মুখ্যমন্ত্রী আরও লোকজন নিয়ে সিবিআই দফতরে ঢুকে যান। তাঁকে গ্রেফতার করার দাবি জানান। ধর্নাতেও বসে যান।

14. আগে এই ধরণের ঘটনা দেখা যায়নি। এটা নজিরবিহীন, বলেন সিবিআইয়ের আইনজীবী।

15. তুষার বলেন সিবিআই আইনজীবী বললেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী ধর্নায় বসছেন। এটা কি হতে পারে? এরপর থেকে সাধারণ গ্রেফতারেও তো এটা ট্রেন্ড হয়ে যাবে। , অভিযুক্তদের হেফাজতে নিয়ে তদন্তের সুযোগ দেওয়া হোক

16. ফিরহাদ, সুব্রতদের আইনজীবী অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি বললেন নিজাম প্যালেসে যারা বিক্ষোভ দেখিয়েছেন তারা ঠিক করেন নি।

17. পাল্টা যুক্তি অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি , বলেন আমার ক্লায়েন্টরা কোন কোন সাক্ষী কে ভয় দেখিয়েছে বা তথ্য লোপাট করেছে। কেন এদের এই ভাবে জেলে রাখা হবে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের

18. কলকাতা পুলিশের সূত্রে জানা যাচ্ছে যে , নিজাম প্যালেসের সামনে যে বিক্ষোভ হয়েছে তার বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়েছে। আজকের শুনানিতে এই প্রশ্ন উঠতে পারে , রাজ্য তৈরি এই তথ্য জানাতে।

19. অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি ও কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় আদালতে জানান যে আইন মিন্ত্রী আদালতের ভিতরে উপস্থিত ছিলেন না। তার ফলে বিচার ব্যবস্থাকে প্রভাবিত করার প্রশ্নই ওঠে না।

20. অভিষেককে বিচারপতির প্রশ্ন: আপনার মতে একজন নেতার কর্তব্য কি? অনুগামীদের প্ররোচিত করার দায় কার ?

21. অভিষেকের জবাব: না আমি মনে করি কোন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারই বিচারপ্রক্রিয়ায় বাধা দেওয়া উচিত নয়

22. আইনজীবী অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি বললেন, মুখ্যমন্ত্রী সিবিআই দফতরে প্রভাব খাটাতে যান নি। এটি কেন্দ্রীয় সংস্থার অফিস। এছাড়া অভিযুক্তরা কোন নিয়ম ভঙ্গ করেন নি , তবে গ্রেফতার কেন। এক দিনের বদলে আরো কয়েক দিন যুগাসবাদ করতে পারতেন তার জন্য জেলে রাখতে হবে এই মহামারীর পরিস্থিতিতে

23. তুষার মেহেতার প্রশ্ন তবে কি জন্য মুখ্যমন্ত্রী সিবিআই দফতরে , এটা প্রভাব বিস্তার করা ছাড়া আর অন্য কি ? চাপ দেওয়া যাতে অভিযুক্তদের না গ্রেফতার করা হয়।

24. বিচারপতির পাল্টা প্রশ্ন অভিষেক মনুসিংভী কে , সিবিআই অফিস বিক্ষোভের ঘটনাটিকে প্রশাসককের নজর দিয়ে দেখা উচিত নয় কি?কেন মুখ্যমন্ত্রী সিবিআই দফতরে। তাকে তো ডাকা হয় নি। আইনমন্ত্রী সিবিআই আদালতে। তাহলে বিচার হবে কোথায়? রাস্তায়?

25. আমাদের দেশে কি গণতান্ত্রিক আন্দোলন করা মানা , দেশে লোক রাস্তায় নেমেই প্রতিবাদ করতেই পারেন ।তার দায় কেন রাজনৈতিক দল নেবে। পুলিশ এর জন্য বেবস্থা নিয়েছে। করা হয়েছে এফআইআর। তদন্ত চলছে এই বিক্ষোভের পিছনে করা।

26. আগামী কালও এই বিচার চলবে , জানালেন বিচারপতিরা কিন্তু আজ বিচার প্রক্রিয়া শেষ হয় নি। এখনও পরিষ্কার করে কিছু জানা যায় নি যে বেল মঞ্জুর করা হবে কিনা।

27. একটু বিরতি নিয়ে আবার ফিরবেন বিচার প্রক্রিয়ায় , জানালেন বিচারপতিগণ

28. জেল মুক্তি নয় আজ , আবারও মামলা কাল হবে । আগামীকাল দুপুর ২টায় ফের শুনানি । এ নিয়ে দু’পক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে বাদানুবাদ চলছে। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত কিছুক্ষেণের মধ্যেই জানিয়েছেন বিচারপতি

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: