Environment

নিজেকে বাঁচান গাছ লাগান : বেহালার ক্রীড়া, সমাজ কল্যাণ ও রাজনীতির মানুষজন সব পক্ষ এক মঞ্চে

যৌথ উদ্যোগে ইকো ক্লাব পর্ণ শ্রী, রাজ্য বডিবিল্ডিং সংস্থা, পদ্মশ্রী শৈলেন মান্না নার্সারি ফুটবল অ্যাকাডেমি ও কালীঘাট স্পোর্টস লাভারস অ্যাসোসিয়েশন এর যৌথ উদ্যোগে বৃক্ষ রোপন -সকাল ৯ টায় ইসলামিয়া মাঠ ,সকাল ১০ টায় পর্ণ শ্রী গভঃ কোয়াটার খেলার মাঠ,সকাল ১১ টায় দত্তের মাঠে ।

নিজস্ব সংবাদদাতা : ভোটযুদ্ধের পর করোনার বিপক্ষে যুদ্ধটা বড় কঠিন হয়ে পড়েছে , বিশ্ব উষ্ণায়ণের প্রভাব বাড়ছে। কলকাতার তাপ মাত্রা শেষের ৫ বছরে বেড়েছে অনেকটাই। পশ্চিমবঙ্গে মূলত গরমের কষ্ট বলতে কয়েকটি জায়গার নাম উঠে আসতো – দুর্গাপুর , আসানসোল ,বাঁকুড়া ,পুরুলিয়া যথাক্রমে সেই তালিকায় নাম উঠে এসেছে কলকাতার নাম। মার্চের শেষেই কলকাতার তাপমাত্রা পৌঁছে গিয়েছিল ৪০.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের বছরেও এক ছবি। ২০১৯-এর ভোটের মরসুমে প্রকৃতি অনেকটাই সদয়।২০২১ শের মার্চে মহানগরের পারদ ৩৫.৫ ডিগ্রির উপরে উঠতে পারেনি। আজকে কলকাতায় ৩৫ থেকে ৪০ ডিগ্রি মধ্যে এখনও পর্যন্ত উঠানামা করছে।

গাছ লাগানোর পাশাপাশি আয়োজকরা জানালেন শহরের একপ্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ছুটে বেড়াচ্ছেন শঙ্কর ঘোষ সহ অনেকেই লায়ন্স ক্লাব অফ বেহালা বরিশার পক্ষ থেকে।কোথায় অক্সিজেন লাগবে , কারও বা হাসপাতালের ভর্তি অথবা করোনায় সংক্রমিত পরিবারের ঘরের বাইরে খাবার হাতে তুলে দেওয়া। তারাও আজ শনিবারের বাজারহাট ফেলে মাঠে মাঠে ঘুড়ে বেড়াচ্ছেন গাছ লাগানোর জন্য। তবে এতো চেতনা বৃদ্ধির মধ্যে কম বয়েসের মানুষ জন অধরাই রইলো , যারা আগামীর রিলেরেস টা করবেন।

শ্রীকুমার রায়চোধুরী উদ্যোগের পক্ষে বললেন আমাদের আরো শক্ত হাতে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা নিয়ে নামতে হবে , বেহালা জুড়ে সমীক্ষা চালাতে হবে- কত গাছ রাস্তায় আর কত গাছ আছে মাঠের ধারে বা পাড়ার ভিতরে। সেগুলোকে চিহ্নিত করে একটি তালিকা তৈরি করে স্থানীয় প্রশাসনের সাথে কথা বলে রক্ষা করার উদ্যোগ নিতে হবে, তবেই কাজের কাজ হবে ।

অতীতের ফুটবলার ইন্দ্রনাথ পাল বলেন , এই করোনা বিপদে অক্সিজেনের অভাব মানুষের কপালে ভাঁজ ফেলেছে , একটা সিলিন্ডারের খোঁজ পাওয়া মানে ভগবানের সাক্ষাৎ পাওয়া। আর সেখানে গাছই একমাত্র পথ যে কোন দাবি ছাড়াই আমাদের দিকে হাত বাড়িয়ে রয়েছে। আসুন আমরা হাত মিলাই গাছের সাথে।

গৌতম দাস সম্পাদক পদ্মশ্রী শৈলেন মান্না নার্সারি ফুটবল অ্যাকাডেমির , বললেন সেগুন , শাল , কাঁঠাল , আসফল , আমগাছ পেয়ারা সহ ২৪ টি গাছ লাগিয়ে প্রতিশ্রুতি রাখার নতুন সোপান ২০২১ । নিন্দুকরা বলেন বছরের একটা দিন ঘটা করে গাছলাগিয়ে সাতসকালে মোটা টাকার ব্রেকফাস্ট করে নাকি উদযাপনে ইতি টানা হয়। কিন্তু শেষের ৫ বছরে প্রায় ২০০ গাছ লাগানো হয়েছে আর তার মধ্যে ১৭০ টার ওপর গাছ আজ বেশ মাথাতুলে দাঁড়িয়ে আছে। নিয়ম করে মাঠের ধারে জল দেওয়া থেকে পরিচর্চায় উদ্যোক্তা দের পাশে আছেন বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দারা , তাই অনেক কিছু নিয়ে নিন্দা করলেও আমাদের এর থেকে বাদ রাখাই ভালো ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: