Industry & Tread

সিকোয় উঠছে পাড়ার মুদি দোকান, ব্যবসার প্রথম সারিতে অনলাইন গ্রসারি শপ

গ্রাহককে অনলাইন পরিষেবা দিতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত JioMart

পল্লবী কুন্ডু : বর্তমান সময় মানুষকে আরো বেশি প্রযুক্তি নির্ভর করে তুলেছে। এখন সকলেই নিজেদের স্বাস্থ নিয়ে যথেষ্ট সচেতন। তাই খুব প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বেরিয়ে ঝুঁকি নিতে কেউই পছন্দ করছেন না। যাবতীয় যা কিছু সেটা রোজের জিনিস হোক বা প্রসাধনী কি খাবার সব কিছুই মোবাইলের শুধুমাত্র একটা স্পর্শের মাধ্যমেই নিজের ঘরে হাজির করছেন। এতে বেশ কিছু সুবিধাও আছে যদিবা। প্রথমত যেমন সময় বাঁচছে তেমনি কষ্টও কমছে। তার এবার সেই প্রত্যেক গ্রাহককে অনলাইন পরিষেবা দিতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত JioMart .

JioMart অ্যাপ এবার এসে গেল গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপল অ্যাপ স্টোরে। রিলায়েন্সের এই অনলাইন গ্রসারি প্ল্যাটফর্ম খুব অল্প দিনের মধ্যেই বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। অনলাইনে জিও মার্টের ওয়েবসাইটে গিয়ে গ্রাহকরা এর আগে জিনিসপত্র কিনতে পারলেও কোনও অ্যাপ ছিল না । এবার তাই গ্রাহকদের সুবিধার জন্যই অ্যাপ লঞ্চ করল সংস্থা। দেশের বিভিন্ন শহরে JioMart.com পরিষেবা দিচ্ছে । মুদি সামগ্রীর পাশাপাশি পার্সোনাল কেয়ার প্রডাক্ট, বাড়ির ও রান্নাঘরের সামগ্রী, পূজার জিনিস, জুতো, বেবি কেয়ার প্রডাক্ট- সবকিছুরই অসাধারণ সম্ভার হাজির রেখেছে জিওমার্ট। সবচেয়ে কম, অন্তত ৫ শতাংশ ডিসকাউন্ট পাওয়া যায় প্রত্যেক জিনিসেই। পাশাপাশি নেট ব্যাঙ্কিং, ডেবিট, ক্রেডিট কার্ডের ইত্যাদি সবকিছুরই সুবিধা মিলবে এখানে।

এর জনপ্রিয়তা যে ইতিমধ্যেই উচ্চশিখরে পৌঁচেছে তা এখন স্পষ্ট। প্লে স্টোর এবং অ্যাপ স্টোরে জিও মার্ট অ্যাপ লঞ্চ হওয়ার অল্প কয়েকদিনের মধ্যেই ১০ লক্ষ ডাউনলোড হয়ে গিয়েছে। যদি কেউ এর আগে জিও মার্টের ওয়েবসাইট থেকে কিছু জিনিস কিনেছেন । তাহলে অ্যাপটিতে লগ ইন করলেই গ্রাহকরা তাদের পুরনো অর্ডার এবং কার্ট আইটেমগুলি দেখতে পারবেন। তাই আর কোনো চিন্তা রইলোনা লকডাউন হোক কিংবা অতিমারী বাড়ি বসেই আপনি নিজের জিনিস পেয়ে যাচ্ছেন আপনার ঘরেই।

এতে তো গ্রাহকের সব থেকে বেশি সুবিধা। কিন্তু অন্যদিকে এই অনলাইন পক্রিয়া চালু হওয়ার পর থেকে লোকসানের মুখ দেখতে শুরু করছেন ছোট ব্যবসায়ীরা। মুদি দোকান থেকে শুরু করে পাড়ার দোকান গুলি। তাই সকলের কাছেই অনুরোধ সম্পূর্ণ প্রযুক্তি নির্ভর না হয়ে সে মানুষ গুলির কথাও কখনো-সখনো ভাববেন। হাজার হোক এই লোকডাউনে তাদেরও তো খেয়ে-পড়ে বাঁচতে হবে।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close
Close
%d bloggers like this: