Big Story

অজ্ঞান না করেই অস্ত্রপ্রচার! নজিরবিহীন কাজ রামপুরহাট হাসপাতালে

মেরুদণ্ডের উপরের অংশে সূচ ফুটিয়ে শরীরের কিছু অংশ অবশ করে করা হয় এই অস্ত্রোপ্রচার

মধুরিমা সেনগুপ্ত: একদিকে অস্ত্রপ্রচার চলছে, অন্যদিকে চলছে গান। না কোনো সিনেমার সিন না! বাস্তবেই এমনটা হয়েছে খাস রামপুরহাট মেডিক্যালে। এমনকি যাঁর শরীরে অস্ত্রোপচার হচ্ছে, সেই রোগিণীর সঙ্গে কথাও বলছেন চিকিত্‍সকেরা। মঙ্গলবার রামপুরহাট মেডিক্যালে এইরকম নজিরবিহীন ভাবেই সফল হলো দেড় ঘন্টার স্তন ক্যান্সারের অস্ত্রোপচার। অস্ত্রোপ্রচারের জন্য উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের অ্যানাস্থেসিয়া বিভাগের আরএমও অনিমেষ চট্টোপাধ্যায়, রাজকুমার মণ্ডল এবং মহম্মদ সফিউল্লা। পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন শল্য বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাদ্দাকাশ আলি যিনি অস্ত্রোপচার করেন। তার সাথে সহযোগিতা করেন শল্য বিভাগের চিকিত্‍সক বিবেক ঠাকুর এবং অভিষেক ঘোষ।

চিকিৎসাপদ্ধতি সম্পর্কে জানতে চাইলে সাদ্দাকাশ আলি বলেন, ”স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত রোগিণীকে অজ্ঞান না করে অস্ত্রোপচার বিরল। এর জন্য অ্যানাস্থেটিস্টদের ধন্যবাদ।” এই বিষয়ে অনিমেষবাবু বলেন, ”মাস দেড়েক আগে দক্ষিণ ভারতে গুটিকয়েক অস্ত্রোপচার এ ভাবে হয়। কলকাতায় এখনও হয়নি।” তিনি আরও বলেন,”মঙ্গলবার ওই রোগিণীর মেরুদণ্ডের উপরের অংশে সূচ ফুটিয়ে শরীরের কিছু অংশ অবশ করা হয়। অস্ত্রোপচার চলাকালীন তাঁর সঙ্গে চিকিত্‍সকরা প্রতি মিনিটে কথা বলেছেন। রোগীর মানসিক অবস্থা ঠিক রাখতে মোবাইলে যন্ত্রসঙ্গীত শোনানো হয়েছে। তিনি ব্যথা বুঝতে পারেননি।” এইপ্রকার নজিরবিহীন অস্ত্রোপচারের জন্য যারপনাই খুশি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: