West Bengal

পিছু হটতে হলো রাজ্যকে, বহাল রইলো গ্রিন ট্রাইবুনালের রায়

আজ বৃহস্পতিবার সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, আদালতের রায় সব সময়ের জন্য শিরোধার্য

পল্লবী কুন্ডু : রবীন্দ্র সরোবরে (Rabindra Sarobar) ছটপুজো (Chhath Puja) হবে কিনা তা নিয়ে এখনো পর্যন্ত কম জল ঘোলা হয়নি। শুধুমাত্র রবীন্দ্র সরোবর নয়, এই তালিকাতে আছে সুভাষ সরোবরের নামও। তবে বিশেষ করেই বারংবার উঠে আসে রবীন্দ্র সরোবরের নাম। রবীন্দ্র সরোবরে ছটপুজো করা নিয়ে মামলা রুজু হয়েছিল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল বা পরিবেশ আদালতে। অনুমতি না মেলায় কেএমডিএ আবেদন করেছিল সুপ্রিম কোর্টে। শেষ পর্যন্ত গ্রিন ট্রাইবুনালের রায়কেই বহাল রাখল সুপ্রিমকোর্টও।

আজ বৃহস্পতিবার এই প্রসঙ্গে মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়(Alapan Bandyopadhyay)কে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, আদালতের রায় সব সময়ের জন্য শিরোধার্য। সেই সঙ্গে তিনি মনে করিয়ে দেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও তাঁর বক্তব্য জানিয়েছেন। তিনি মানুষের কাছে আবেদন করেছেন তাঁরা যেন ভিড় না করেন। কোভিডের সমস্ত প্রোটোকল মানেন। গ্রিন ট্রাইবুনালের নির্দেশে গতবারই বন্ধ হয়ে গিয়েছিল রবীন্দ্র সরোবরের ছটপুজো। তা নিয়ে কম হট্টগোল হয়নি! তার পর এবছর সেপ্টেম্বর মাসে পরিবেশ আদালতের কাছে কলকাতা মেট্রোপলিটন ডেভলপমেন্ট অথরিটি তথা কেএমডিএ আবেদন করেছিল, শর্ত সাপেক্ষে ছটপুজো করতে দেওয়া হোক লেকে। সেই আর্জি খারিজ করে দেয় গ্রিন ট্রাইবুনাল। জানিয়ে দেয়, কোনও শর্তেই লেকে ছটপুজোয় অনুমতি দেওয়া যাবে না।

এই বিষয়ের পরেই সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার কথা জানিয়েছিলেন কলকাতা পুরসভার প্রশাসনিক বোর্ডের প্রধান তথা পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেছিলেন, ‘ছটপুজোয় বহু মানুষের ধর্মীয় ভাবাবেগ রয়েছে। তাই আমরা গ্রিন ট্রাইবুনালের কাছে আর্জি জানিয়েছিলাম যাতে শর্ত সাপেক্ষে ছটপুজোয় অনুমতি দেওয়া হয়। এবার সুপ্রিম কোর্টে যাব।’ তবে এতে আখেরে লাভের লাভ কিছুই হলোনা। শেষমেশ গ্রিন ট্রাইবুনালের রায়কেই বহাল রাখল সুপ্রিমকোর্ট।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: