West Bengal

করোনা সংক্রমণে আরও বেশি স্বচ্ছতার উপর লক্ষ রেলের, প্রয়োগ একাধিক আইনি নিয়ম

মানতে হবে সকল আইনি নিয়ম, নাহলে লাগু হবে জরিমানা

দেবশ্রী কয়াল : করোনা সংক্রমণের জেরে প্রতিটি মানুষ আজ ভয়ে ত্রস্ত। কিন্তু এই আনলক ফোর পর্যায়ে প্রস্তুতি নিয়ে নিউ নর্মালের দিকে মানুষ এগোচ্ছেন। করোনা পরিস্থিতিতে সংক্রমণের দ্রুততাকে হারাতে পারে স্বচ্ছতা। এই দিকে অনেকটা ধাতস্ত হয়েছে রেলও। তাই সংক্রমণ রুখতে দ্বিসপ্তাহিক পরিচ্ছন্নতা পালনে রেল স্টেশন সাফ রাখতে আরও কড়া আইন প্রয়োগ করতে চলেছে রেল। স্টেশনে থুতু ফেলা থেকে শুরু করে যে কোনওভাবে নোংরা ছড়ালে জারিমানা দিতে হবে ৫০০ টাকা। হাওড়ার ডিআরএম ইশাক খান বলেন, ‘নোংরা ছড়ানো আইনত দণ্ডনীয়। আর সেই আইন উপযুক্ত ভাবে প্রয়োগ করতে হবে। তবে কি ভাবে তা প্রয়োগ হবে তা এখনও স্থির হয়নি, এখন আলোচনা পর্ব চলছে। আলোচনার মাধ্যমে স্থির হবে যাবতীয় সিদ্ধান্ত।’

বর্তমান পরিস্থিতিতে করোনা যুদ্ধে প্রয়োজনীয় বিষয়গুলির দিকে দৃষ্টি দিয়ে স্বচ্ছতা পালনের উদ্যোগ নিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। হাওড়া, শিয়ালদহ, খড়গপুর, আসানসোল, মালদহ ডিভিশনগুলিতে এই অভিযান চলছে। স্টেশনগুলি পরিষ্কার করার পাশাপাশি যাতে নোংরা না হয়, সে বিষয়ে সচেতন করার কাজ শুরু করেছে। এড্রেস সিস্টেম ও বিলবোর্ডে প্রচার শুরুর সাথে সাথে মাস্ক, সানিটাইজ, সাবান ব্যাবহারের সুপরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। স্টেশনে ভেন্ডিং স্টল গুলিতে খাবারে ও ব্যবহৃত সামগ্রীর উপযুক্ত যায়গায় না ফেললে নিশ্চিত জরিমানার বিষয়টিকেও রাখা হয়েছে। এছাড়া কম সংখ্যক ট্রেন চললেও কামরা সাফাই, শৌচালয় সাফাই, প্যানট্রি কার সাফাই চলছে। দপ্তর থেকে, রেল আবাসন, রেল হাসপাতাল পরিচ্ছন্ন রাখার কাজ চলছে।

দেশজুড়ে লাগামহীনভাবে বেড়ে চলেছে করোনা সংক্রমণ। কোনো আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি, কাশি বা লালা থেকে দ্রুত ছড়াতে পারে এই মরণ রোগের জীবাণু। তাই স্টেশন চত্বরে থুথু ফেলা নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে রেল। করোনা আবহে যাত্রীবাহী ট্রেন পরিষেবা স্বাভাবিক না হলেও বেশ কয়েকটি বিশেষ ট্রেন চলছে। এবং সেগুলিতে রীতিমতো ভিড়ও হচ্ছে। ফলে যাত্রীদের স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখেই এই সকল পদক্ষেপ নিচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

Tags
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close
Close
%d bloggers like this: