Weather

বঙ্গ জুড়ে বৃষ্টির আবহাওয়া স্বস্তি ফেরালেও, জ্বর-সর্দি-কাশি-তে ভোগার সম্ভাবনা প্রবল যা বিপদ ডেকে আনতে পারে

দক্ষিণবঙ্গে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সঙ্গে উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টি চলতে থাকবে বলে জানা যাচ্ছে হাওয়া অফিস সূত্রে।

পল্লবী কুন্ডু : গত মঙ্গলবার থেকেই কলকাতার আকাশে এসেছে পরিবর্তন। প্যাচ-প্যাচানি গরম থেকে মুক্তি পেয়ে কিছুটা স্বস্তি মিলেছে। ভারী বৃষ্টি না হলেও, বিক্ষিপ্ত ভাবে বৃষ্টি হয়ে চলেছে এর ফলে তাপমাত্রাও বেশ স্বস্তি দায়ক। কলকাতা-সহ বেশ কয়েকটি জেলায় বুধবার সারারাত ধরে চলেছে বৃষ্টি। মৌসুমী অক্ষরেখা দক্ষিণ দিকে সরে যাওয়াতেই এই বৃষ্টি বলে জানানো হয়েছে। দক্ষিণবঙ্গে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সঙ্গে উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টি চলতে থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

অন্যদিকে, হাওয়া অফিস থেকে আগামী ২৪ ঘন্টায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস মিলেছে উত্তরবঙ্গের ৫ জেলায়। এবং বাকি তিন জেলায় বজ্রবিদ্যুত্‍-সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস। আগামী ২৪ ঘন্টার দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলির কোনও কোনও জায়গায় বিক্ষিপ্তভাবে বজ্রবিদ্যুত্‍সহ হাল্কা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। পরবর্তী ২৪ ঘন্টায় হিমালয় সংলগ্ন ৫ জেলার কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হলেও, সেই সম্ভাবনা ধীরে ধীরে হ্রাস পাবে বলেই জানা গিয়েছে। তবে এই মুহূর্তে হিমালয় সংলগ্ন এলাকায় সক্রিয় রয়েছে মৌসুমী অক্ষরেখা। আগামী কয়েকদিন মৌসুমী অক্ষরেখার অবস্থানের কোনও বদল হবে না বলেই জানানো হয়েছে। অন্যদিকে স্থলভাগে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকেছে সাগর থেকে। এর জেরেই আবহাওয়ার খুব একটা পরিবর্তন হবেনা।

তবে আবহাওয়ার এরূপ বিচিত্রতার কারণে শারীরিক অবস্থার ক্ষতি হচ্ছে। কখনো গরম আবার কখনো বৃষ্টির জলাবহাওয়ায় জ্বর, সর্দি-কাশি ইত্যাদি হচ্ছে যা শিশুদের জন্য এবং বয়স্কদের জন্য খারাপ। যদি কোনো ব্যক্তি জ্বর, সর্দি-কাশিতে এই সময় ভোগে তবে সেক্ষেত্রে সেই শরীরে ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে। তাই চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী এই ঋতু পরিবর্তনের এমন সময়তে সর্বদা সচেতন থাকা উচিত। এবং খাদ্য তালিকাতেও নজর দেওয়া প্রয়োজন যাতে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। অসুস্থ হওয়ার হাত থেকেও শরীরকে রক্ষা করে।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close
Close
%d bloggers like this: