West Bengal

ভোটের আগে মিথ্যেচার করছে শাসক দল, প্রতারণা করছে তারা : কটাক্ষের সুর সুজনের গলায়

চাকরি দেওয়ার কেবল প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী, ভোটের আগে এসব প্রতারণা অভিযোগ বাম নেতার

দেবশ্রী কয়াল : সামনেই বিধানসভার ভোট, আর তারই প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে প্রত্যেকটি দল। ভোটের পূর্বে লক্ষ লক্ষ বেকার যুবক-যুবতীদের চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি সম্প্রতি দিয়েছি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। আর তারপরেই এই বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে প্রতারণা করার কটাক্ষ দিয়েছেন, সুজন চক্রবর্তী (Sujan Chakraborty)। মমতা বন্দোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee)এই চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতিকে ‘প্রতারণা’ বলে কটাক্ষ করেছেন বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী। তিনি বলেন, ”ভোটের আগে মানুষকে চাকরির প্রতিশ্রুতি না দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী অবিলম্বে আগে তাদেরকে নিয়োগ করে দেখান। তাহলেই বোঝা যাবে মুখ্যমন্ত্রী সত্যি কথা বলছেন কি না।” শুধু তাই না তিনি অভিযোগ করে বলেন ”ভোটের আগে মিথ্যাচার করা হচ্ছে”।

এদিন সুজন চক্রবর্তী বলেন, ”গতবার ভোটের পূর্বে মুখ্যমন্ত্রী ৬০ হাজার গ্রুপ-ডি পদে নিয়োগের কথা বলেছিলেন অথচ সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ হয়নি। ভিআরপি-দের মাইনে ১২ হাজার টাকা করে দেওয়ার কথা বলেছিলেন কিন্তু তাও করা হয়নি।” এখানেই শেষ না, এরপর তিনি বলেন, ”টেটের ২০১৫ সালে তালিকাভুক্ত সকলের নিয়োগ করা হয়নি। ২০১৭ সালের পরীক্ষা নেওয়া হয়নি। পশ্চিমবঙ্গে এখন শূন্য পদ ৫ লক্ষ। এত শূন্যপদ কখনও হয়নি। তাহলে এমন অবস্থা হলো কেন? এতদিন তো মনে পড়েনি, এখন ভোটের আগে আগে মুখ্যমন্ত্রীর চাকরির কথা মনে পড়ছে। এটাকে প্রতারণা ছাড়া অন্য কিছু বলা যাবে না”

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন, আগামী তিন বছরে এ রাজ্যের ৩৫ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে। যার মধ্যে ক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি শিল্পে ১৫ লক্ষ ধরা হয়েছিল। তাছাড়া তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে ৫ লক্ষ চাকরির সম্ভাবনার কথা বলেছিলেন। আর হ্যান্ডলুম এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে কর্মসংস্থানের সম্ভাবনার কথা বলা হয়েছিল। আর তারপরেই রাজ্যের বিরুদ্ধে এমন সকল গুরুতর অভিযোগ এনেছেন বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: