Sports Opinion

শ্রেয়সের হাত ধরেই ইন্দ্রপতন হায়দ্রাবাদের, ফাইনালে মুখোমুখি মুম্বাই-দিল্লি

টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার, নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৮৯ রান তোলে।

পল্লবী কুন্ডু : এরকম একটা জোর লড়াই তো হওয়ারই ছিল তাইনা।ফাইনালে যাওয়ার সুযোগ যে কেউই হাতছাড়া চায়না।গতকাল ফাইনালের আগে শেষ ম্যাচ ছিল, মুখোমুখি হয়েছিল হায়দ্রাবাদ(Sunrisers Hyderabad) এবং দিল্লি( Delhi Capitals )।টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার।নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৮৯ রান তোলে।শিখর ধাওয়ানের দুরন্ত ৭৮, মার্কাস স্টয়নিসের ৩৮ এবং তারপর হেটমায়ারের ৪২ রানে দিল্লি ক্যাপিটালস-এর মোট রান এনে দাঁড়ায় ১৮৯।

মুম্বইয়ের কাছে প্রথম কোয়ালিফায়ারে হারার পর ফাইনালে ওঠার জন্য দ্বিতীয় সুযোগ ছিল দিল্লীত কাছে এবং অবশ্যই সেটা ডু অর ডাই ম্যাচ। নিজেদের সেরাটাই দিতে চেয়েছিলেন শ্রেয়সরা। সেই কাজে সফলও তাঁরা। বড় রান করার লক্ষ্যেই ফর্মে থাকা স্টয়নিসকে ওপেন করতে পাঠানো হয় এদিন। একবার আউট হতে হতে বেঁচে যাওয়াতেই ৩৮ রান করেন স্টয়নিস। অন্যদিকে এদিন ৬টি চার এবং ২টি ছক্কার সাহায্যে ৫০ বলে ৭৮ রান করেন শিখর ধাওয়ান।বলা যেতে পারে এই ম্যাচের হাল ধরে অনেকটাই এগিয়ে ছিলেন তিনি।

এদিকে, নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ক্রিজে আসার পরেই যেন আবার প্রাণ ফিরে পেয়েছিলো হায়দ্রাবাদ। এদিন ৪৫ বলে ৬৭ রান করলেন উইলিয়ামসন।কিন্তু তার সেই থমকে গেলো স্টয়নিসের বলে। তিনি আউট হয়ে ফিরে গেলেন প্যাভিলিয়নে।উইলিয়ামসনের পাশাপাশি ৬ নম্বরে আসা আবদুল সামাদও ১৬ বলে ৩৩ রান করে মরিয়া একটা লড়াই করেছিলেন। কিন্তু একটা দলের জিৎ তখনি আসে যখন সেই দলের সমতা বজায় থাকে। এদিনের ম্যাচে বাকিরা চূড়ান্ত ব্যর্থ ছিলেন। ১৭ রানে জিতে ফাইনালে এবার মুম্বইয়ের সামনে শ্রেয়সের দিল্লি ক্যাপিটালস। এই প্রথমবার আইপিএলের ফাইনাল খেলবে দিল্লি। আর তাই শিরোপা বদলের এক বিদ্ধংসী ম্যাচ দেখতে অত্যন্ত আগ্রহী গোটা ক্রিকেট মহল।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: