Nation

ভোটের টিকিটের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কাউকে যোগদান করাবে না বিজেপি, বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্ত রাজ্য বিরোধীর

শুক্রবার দিল্লিতে অমিত শাহের বাসভবনে বিজেপির উচ্চপর্যায়ের বৈঠকেই গৃহীত হয় একাধিক সিদ্ধান্ত

পল্লবী কুন্ডু : একুশে বিধানসভার আগে উত্তাল বাংলার রাজনীতি। শাসক বিরোধী সংঘাতের পারদ ক্রমশ উর্ধমুখী। এমতাবস্তায় তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান নতুন কিছু নয়। তবে এবার দলবদলের ক্ষেত্রে বিজেপির পক্ষ থেকে গৃহীত হলো একাধিক সিদ্ধান্ত। অন্য দল থেকে বিজেপিতে যোগদানে কোনও শর্ত দেওয়া যাবে না। ভোটের টিকিটের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কাউকে যোগদান করাবে না বিজেপি। শুক্রবার দিল্লিতে অমিত শাহে(Amit Shah)র বাসভবনে বিজেপির উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে এই সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হয়েছে।

সূত্রের খবর, ভোটের মুখে তৃণমূলের নেতাদের বিজেপিতে যোগদান নিয়ে অন্তর্দলীয় যে ক্ষোভ তৈরি হচ্ছে তা টের পাচ্ছেন দলের উচ্চ পদস্থরা।সেই নিয়ে শুক্রবারের বৈঠকে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে। এদিনের ওই বৈঠকে রাজ্য থেকে উপস্থিত ছিলেন দিলীপ ঘোষ(Dilip Ghosh), মুকুল রায় ও কৈলাস বিজয়বর্গীয়। বৈঠক শেষে দিলীপবাবু বলেন, ‘আমরা শুধু দলের পতাকা হাতে তুলে দিচ্ছি। দলে এলেই টিকিট পাওয়া যাবে না। টিকিট বণ্টন হবে জয়ের সম্ভাবনার ভিত্তিতে।’

কোন জেলায় সম্ভাব্য কে জিততে পারেন তা পর্যবেক্ষণ করতে ইতিমধ্যে গোটা রাজ্যকে ৭ টি জোনে ভাগ করে ৭ জন নেতৃত্বকেও ঠিক করেছে বিজেপি। তাঁরা ইতিমধ্যে দিল্লিতে রিপোর্টও দিয়েছেন। এসবের ওপর রয়েছে আরএসএস এর নির্দেশিকা। নাগপুর থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, দলের লোকসংখ্যা বাড়াতে আদর্শের সঙ্গে কোনো রকম আপোস করা যাবে না। সম্প্রতি বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বঙ্গ সফরে তৃণমূল স্তরে কী প্রভাব পড়েছে তা নিয়েও আলোচনা হয়েছে বৈঠকে। সঙ্গে আগামীতে রাজ্যে বড় সভা-সমাবেশ করার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয় ওই বৈঠকে। সংশ্লিষ্ট বিষয়ের পরই যে প্রশ্ন উঠছে, তবে কি লোভ দেখিয়ে ভোট আদায়ের পথে নেমেছে ভারতীয় জনতা পার্টি ?

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: