West Bengal

‘বিজেপি শুভেন্দু অধিকারীকে দলে নিয়ে ভাবছে, বাংলা দখল হয়ে গেছে’, একের পর এক বাক্য বান সুব্রত মুখার্জির

দল ছাড়ার পরের দিনই শুভেন্দু-কে নিয়ে বিজেপিকে তোপ দাগলেন রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়

পল্লবী কুন্ডু : অমিত শাহের উপস্থিতিতে বাংলায় হাওয়া বদলের সুর কিন্তু ইতিমধ্যেই ধ্বনিত হচ্ছে। গতকাল মেদিনীপুরের কলেজ-কলেজিয়েট মাঠে অমিত শাহের সভাতে দল বদল ঘটেছে বিরোধী দলের একাধিক নেতা বিধায়কের। তাদের মধ্যেই ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। গতকাল দল পরিবর্তনের পর বিগত দিন গুলোর জমে থাকা ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন শুভেন্দু। দল ছাড়ার পরের দিনই তাঁকে নিয়ে বিজেপিকে তোপ দাগলেন রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়(Subrata Mukherjee)।

রবিবার সাংবাদিক বৈঠকে মেদিনীপুরের সভা থেকে শুভেন্দু অধিকারী ও অমিত শাহের করা একের পর এক উক্তির পাল্টা যুক্তি দিয়ে তিনি বললেন,”বিজেপি শুভেন্দু অধিকারীকে দলে নিয়ে ভাবছে, বাংলা দখল হয়ে গেছে। এমন, যেন ২৫০ আসন জিতে গেছে। ভাগ্যিস বলেনি, ৩০০ আসন পাবে। শুভেন্দু অধিকারীর দলবদলে তৃণমূলের মতো বড় রাজনৈতিক দলের কিছু এসে যায় না। আমাদের নেত্রীর নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর উপরে বাংলার মানুষ ভরসা করে। তাতেই আমরা নিশ্চিত, ক্ষমতায় থাকব।”

এই বিষয় ছাড়াও, বোলপুরে অমিত শাহকে স্বাগত জানানোর জন্য একাধিক পোস্টার দেয় বিজেপি। সেখানে অমিত শাহ, অনুপম হাজরার সঙ্গে ছিল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছবি। সেই বিষয়কে সামনে রেখেই সুব্রত বলেন, ”অমিত শাহের আগমনকে কেন্দ্র করে শান্তিনিকেতনে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে অসম্মান করে হোর্ডিং দেওয়া হয়েছে। যা বাংলার মানুষ মেনে নেয়নি। অমিত শাহের ছবির নীচে রবিঠাকুরের ছবি রেখে অপমান করা হয়েছে। সেই কারণেই জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ির সামনে আজ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ধরনা হবে।”

মেদিনীপুরের সভা থেকে জেপি নড্ডার কনভয়ে হামলা নিয়েও কথা তুলেছিলেন বিজেপি নেতারা। রবিবার সেই প্রসঙ্গ নিয়েই সুব্রত মুখোপাধ্যায় স্পষ্ট ভাবেই জানান,”বিজেপি সভাপতির কনভয়ের নিরাপত্তায় কোনও গাফিলতি ছিল না। কনভয়ে অতিরিক্ত গাড়ি ঢোকায় সমস্যা হয়েছিল। এতে রাজ্যের কোনও দোষ নেই।’ জবাব, জবাবের বিরুদ্ধে পাল্টা জবাব রাজ্য জুড়ে এই মুহূর্তে তুঙ্গে তৃণমূল বিজেপি সংঘাত।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: