West Bengal

১০০ কোটির দুর্নীতি অনুসন্ধানে এবার ‘ক্যাগ’

আম্ফান দুর্নীতির অনুসন্ধানের দায়িত্বে এবার 'ক্যাগ', নির্দেশ হাইকোর্টের

পল্লবী কুন্ডু : একুশে নির্বাচনের আগে ফের উঠে এলো আম্ফান দুর্নীতি (Amphan Corruption)। বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির পক্ষ থেকে সর্বদাই এই অভিযোগ উঠে আসতো যে, তৃণমূল এতটাই অমানবিক ও দুর্নীতিগ্রস্ত দল যে এরা উমফানে সব হারানো মানুষগুলোর ত্রাণও চুরি করেছে। অভিযোগ এই দুর্নীতিতে অন্তত ১০০ কোটি টাকা নয়ছয় করা হয়েছে।এবার সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আজ মঙ্গলবার একটি মামলার শুনানিতে কলকাতা হাইকোর্ট (Kolkata Highcourt) দুর্নীতির অভিযোগ খতিয়ে দেখতে কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল তথা ক্যাগকে (Comptroller and Auditor General of India) তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছে।

আদালতে যে মামলা দায়ের হয়েছে তাতে মামলাকারীর স্পষ্ট বক্তব্য, বিপর্যয়ের মধ্যেও রাজ্যের উপকূলবর্তী জেলার এলাকাগুলিতে ত্রাণ নিয়ে মাত্রাহীন দুর্নীতি হয়েছে। শুধু বিরোধী দলের নেতারাই নন। রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ও একাধিক বার অভিযোগ করেছেন এ নিয়ে। রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধানের বক্তব্য ছিল, তাঁর কাছে ভুড়ি ভুড়ি অভিযোগ আসছে যে, ত্রাণের চাল লুঠ হচ্ছে। শাসকদলের লোকজন এই ঘটনায় জড়িত রয়েছেন বলেও শুনতে পাচ্ছি। গোসাবা থেকে সন্দেশখালি এই রকম অসংখ্য ঘটনা দেখা গিয়েছে যে, শাসকদলের নেতাদের নাম রয়েছে ক্ষতিগ্রস্তের তালিকায়। মিলিয়ে দেখা গিয়েছে তাঁদের বাড়িঘরের তেমন কোনও ক্ষতিই হয়নি। কারও তিন তলা বাড়ি রয়েছে তাঁর নামও উমফানের টাকা প্রাপকের তালিকায় উঠে গেছিল। উল্লেখ্য, পরে এ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, ‘তাড়াহুড়ো করে টাকা পাঠাতে গিয়ে দু’একটা ভুল হয়ে গিয়েছে।’

কলকাতা হাইকোর্ট-এর কথায়, কাদের ত্রাণ পাওয়ার কথা অথচ পাননি, কেন পাননি, কী প্রক্রিয়ায় ঝড় বিধ্বস্ত এলাকায় ত্রাণ বন্টন হয়েছিল, প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তরা যদি ত্রাণ না পেয়ে থাকেন তাহলে তাঁরা কেন পাননি – এই সমস্ত বিষয়ে পুঙ্খানুপুঙ্খ রিপোর্ট আগামী তিন মাসের মধ্যে আদালতে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ক্যাগকে। অন্যদিকে দুর্নীতির এই বিষয়কে সামনে রেখে এদিন তৃণমূল ভবনের রুটিন সাংবাদিক বৈঠকে প্রশ্ন করা হলে রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বলেন, ‘দুর্নীতি বলছেন কেন? বলুন হাইকোর্ট রিপোর্ট চেয়েছে!’

আগত বিধানসভা নির্বাচনের আগে ফের মাথাচাড়া দিয়ে উঠলো আম্ফান দুর্নীতি। সংশ্লিষ্ট বিষয়কে ঘিরেই সরগরম রাজনৈতিক মহল।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: