Nation

জে পি নাড্ডার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা তিন আইপিএস অফিসারকে বদলির নির্দেশ দিল মোদী সরকারের

আইএএস-আইপিএস অফিসারদের ভয় দেখানোর চেষ্টা হচ্ছে, বললেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়

পল্লবী কুন্ডু : জেপি নাড্ডার(J. P. Nadda) কনভয় হামলার ঘটনাকে ঘিরে উত্তপ্ত রাজ্য রাজনৈতিক মহল। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই এবার রাজ্যের তিন পদস্থ আইপিএস অফিসারকে বেনজির ভাবে কেন্দ্রে ডেপুটেশনে বদলির নির্দেশ দিল মোদী সরকার (Modi government)। নয়াদিল্লির নর্থব্লকের একটি সূত্রের কথায়, বিজেপি সভাপতির নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার ব্যাপারে এই তিন উচ্চ পদস্থ আইপিএস কর্তার উপর সরাসরি দায়িত্ব ছিল। তাঁদের কর্তব্যে ত্রুটি হয়েছে। সেই কারণেই তাঁদের কেন্দ্রে ডেপুটেশনে বদলি করা হয়েছে।

রাজ্যে পুলিশ ও প্রশাসনের এক শ্রেণির পদস্থ আইএএস ও আইপিএস কর্তা যে রাজনৈতিক প্রভুর নির্দেশে কাজ করেন সে ব্যাপারে বিরোধী দলগুলির সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে। অনেকেই এমন মত প্রকাশ করছেন, একুশের নির্বাচনের আগে তাঁদের উপর চাপ তৈরি করতেই এ পথে হাঁটল দিল্লি। তিন জনকে দিল্লিতে ডেপুটেশনে ডেকে আসলে বার্তা দেওয়া হল তিরিশ জনকে। তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ও সে কথাই বলতে চেয়েছেন। অজয় ভাল্লাকে লেখা চিঠিতে তিনি বলেছেন, ‘পরোক্ষে বাংলায় জরুরি অবস্থা জারি করার চেষ্টা চলছে। আইএএস-আইপিএস অফিসারদের ভয় দেখানোর চেষ্টা হচ্ছে। এর উদ্দেশ্য অসত্‍। আপনি বা অমিত শাহ কেউই আইনের উর্ধ্বে নন’। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিবকে দেওয়া ওই চিঠিতে কল্যাণ আরও লিখেছেন, ‘অমিত শাহর চাকর হয়ে কাজ করবেন না। আমরা আইএএস-আইপিএস অফিসারদের সম্মান করি। তাই বলছি, আপনিও রাজনৈতিক প্রভুর কথা না শুনে নিরপেক্ষ ভাবে ও দায়িত্বশীল হয়ে কাজ করুন’।

বদলির বিষয়কে সামনে রেখে, ১১ ডিসেম্বর অর্থ্যাৎ গতকাল কেন্দ্র সরকারের তরফে এই মর্মে চিঠি পাঠানো হয়েছে নবান্নকে। সরকারি ভাবে অবশ্য নবান্ন বা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের তরফে এ বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া এখনো জানানো হয়নি। তবে দিল্লির পদক্ষেপ নিয়ে তীব্র আপত্তি জানিয়ে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভাল্লাকে চিঠি লিখেছেন তৃণমূলের সাংসদ তথা আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। বাংলায় এ ধরনের ঘটনা এটিই প্রথম নয়। এর আগেও ঘটেছে এমন ঘটনা। তবে কেন্দ্র করেছিল নির্বাচন কমিশনের পরামর্শে। আইপিএস অফিসার রাজীব কুমারকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে বদলি করা হয়েছিল। এবার প্রথম দিল্লির সরাসরি পদক্ষেপ গ্রহণ।

জে পি নাড্ডার কনভয়ের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল রাজ্য বিজেপি। এ ব্যাপারে রাজ্যপালের কাছে হামলা সম্পর্কিত রিপোর্ট চাওয়া হয় কেন্দ্রের তরফে। গতকাল সেই রিপোর্ট পাঠিয়েছেন রাজ্যপাল। তারপরেই রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তুলে রাজ্যের ডিজি ও মুখ্যসচিবকে ১৪ তারিখ তলব করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: