Big Story

কর্নাটকে পারিবারিক আর্থিক অভাবের কারণে স্কুলের ফি দিতে না পারায় আত্মহত্যার চেষ্টা ছাত্রীর

অভাব অনটনকে সঙ্গী করেই দিন কাটে গ্রীষ্মার পরিবারের

সায়ন দেবসিংহ: সময় মতো ফি দিতে না পারায় দশম শ্রেণির ।মাইনে না দিলে বোর্ডের পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হবে না বলে জানায় স্কুল কতৃপক্ষ।জীবনের প্রথম বোর্ডের পরীক্ষা দিতে পারবে না, তা ভেবে ভেঙে পড়ে কর্নাটকের দক্ষিণ কন্নড়ের ছাত্রী গ্রীষ্মা নায়ক।পরীক্ষার সকল প্রস্তুতি বৃথা চলে যাবে তা না মানতে পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় গ্রীষ্মা।


বাবা নরসিংহমূর্তি এবং মা পদ্মভাতাম্মা নিজেদের সাদ্ধমত চেষ্টা করেন মেয়েকে পড়ানোর ।নরসিংহমূর্তি একজন কৃষক। অভাব অনটনকে সঙ্গী করেই দিন কাটে তাদের।অর্থাভাবের কারণেই স্কুলের বেতন দিতে পারেননি নরসিংহমূর্তি।তবে তারা ভাবতে পারেননি মেয়ে আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেবে।এরপর চুপ করে না থেকে তারা যোগাযোগ করেন ডেপুটি ডিরেক্টর ফর পাবলিক ইনস্ট্রাকশন (ডিডিপিআই)-এর সঙ্গে।গোটা বিষয় শুনে তিনি কিছু করার আশ্বাস দেন গ্রীষ্মার মা বাবাকে।শিক্ষামন্ত্রী সুরেশ কুমার বিষয়টি জানতে পারেন। রাজ্য জুড়ে এ রকম একাধিক অভিযোগ আসতে শুরু করে। ফলে সমস্যাটির ওপর বিশেষ নজর দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: