Entertainment

সমালোচনার মুখে এইবার লতা মঙ্গেশকর, পাল্টা জবাব আদনান সামির

প্রবীণ এই সংগীতশিল্পীর উদ্দেশে এক নেটিজেনের মন্তব্য, 'লতা মঙ্গেশকরের কণ্ঠ মোটেই ভাল নয়, মগজধোলাই করে তাঁকে তোল্লাই দেওয়া হয় মাত্র!' ওই নেটজনতার এমন মন্তব্যের পরই শোরগোল শুরু হয়ে যায় নেটিদুনিয়ায়

পৃথা কাঞ্জিলাল : লতাজির গান শোনেননি কিন্তু ছোট থেকে বোরো হয়েছেন এরকম লোক পাওয়া খুব এ মুশকিল। ভারতে যত সঙ্গীতশিল্পী তথা সঙ্গীত বিশেষজ্ঞ জন্মেছেন তার শীর্ষ নাম লতা মঙ্গেশকর। ১০০ বছর পরেও লতার মতো সুকণ্ঠী আর আসবে না বলে জানিয়েছিলেন প্রয়াত শচীন দেববর্মন। কিন্তু এহেন লতাকেও সোশ্যাল মিডিয়া যেতে ছেড়ে কথা বলা হয়নি। ফেসবুক বা টুইটে কারও মন্তব্য করতে কোনও বাধা নেই। যে যা খুশি লিখতে পারে যদি না ওই লেখার উপর দলবদ্ধ কোনও প্রতিবাদ ওঠে। লতা সম্বন্ধে কাবেরী নামের একজন টুইট করেন ” লতা মঙ্গেশকরের কণ্ঠ অসাধারণ এ কথা ভারতীয়দের মগজ ধোলাই করে বোঝাতে হয়। এই নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। তীব্র প্রতিবাদ জানালেন সকলে। কড়া জবাব দিলেন সংগীতশিল্পী আদনান সামি (Adnan Sami) এবং পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী (Vivek Ranjan Agnihotri)।

নেটিজেনদের করা টুইট টি দেখে সেই টুইট রিশেয়ার করে আদনান সামি লেখেন, ‘বান্দর কেয়া জানে অদ্রক কা স্বাদ… মুখ খুলে সবার সামনে নিজের নির্বুদ্ধিতা প্রমাণ না করে চুপ করে থাকলে ভাল হত না!!’ পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী লেখেন, ‘আমি ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি লতা মঙ্গেশকরের নিন্দুকরা যেন পরের জন্মে আমাদের মতো মানুষ হয়ে জন্মান যাতে তাঁরা সৌন্দর্যের মূল্য এবং স্বর্গীয় অনুভূতি বুঝতে পারেন।’

স্বাভাবিক ভাবেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন নেটিজেনরাও। গৌরব মিশ্র নামে একজন ‘রং দে বাসন্তী’ ছবির গান শেয়ার করে লিখেছেন, ‘এটা ঠিক লতা মঙ্গেশকের কণ্ঠ ভাল নয়। আসলে লতা মঙ্গেশকরজির কণ্ঠই সেরা।’ প্রিয়ঙ্ক নামের এক নেটিজেন আবার লেখেন, ‘কাবেরীর মন্তব্যের থেকেও বেশি সমস্যার সেই নির্বোধরা যাঁরা এই টুইটে লাইক করেছে।’ এমনই অসংখ্য প্রতিবাদে ভরে গিয়েছে টুইটার। ৯১ বছরের কিংবদন্তির হয়ে এভাবেই জবাব দিয়েছেন নেটিজেনরা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: