Weather

খামখেয়ালি মৌসুমী বায়ু, অস্বস্তিকর তাপমাত্রায় নাকাল কলকাতাবাসী

দুর্বল মৌসুমি বায়ুর জন্য এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি, বৃষ্টির পরিমান কম বলেই জানা যাচ্ছে হাওয়া অফিস সূত্রে।

পল্লবী কুন্ডু : ফের অসস্থিকর তাপমাত্রায় নাকাল কলকাতাবাসী। সকাল থেকেই গুমোট গরম। বৃষ্টি নেই ফলে বেলা বাড়ার বাড়ার সাথে সাথে ক্রমশ বর্ধিত হচ্ছে তাপমাত্রা। গরমে প্যাচ-প্যাচে ঘামে ভুগছে দক্ষিণবঙ্গবাসী।তবে বৃষ্টির পরিমান কম বলেই জানা যাচ্ছে হাওয়া অফিস সূত্রে।দুর্বল মৌসুমি বায়ুর জন্য এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হচ্ছে বলে জানাচ্ছে। যেখানে স্থানীয় মেঘ জমছে সে সব জেলায় বৃষ্টি হচ্ছে বেশি।পারদ কম থাকছে। যেখানে বৃষ্টি হচ্ছে না স্বাভাবিক নিয়মে তাপমাত্রা বেশি থাকছে।

এদিকে অতিরিক্ত আর্দ্রতার মঙ্গলবার প্রচুর বৃষ্টি হয় শহরে। আর তাতেই কমল শহরের তাপমাত্রা। যে পারদ ২৮ ডিগ্রি থাকবার কথা ছিল তা ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে রয়েছে। বেলা বাড়লেও তা ২৬এর আশেপাশেই ঘোরাফেরা করবে। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা অবশ্য ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে থাকবে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস।বুধবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক। মঙ্গলবার বিকালে শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। আজ শহরের তাপমাত্রা থাকবে সর্বোচ্চ ৩৪ থেকে সর্বনিম্ন ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে।

এদিন আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৭ ও সর্বনিম্ন ৬৬ শতাংশ। বৃষ্টি হয় ৬১.১ মিলিমিটার। দমদম বৃষ্টি হয়নি। সল্টলেকে ৫০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়।বুধবার দক্ষিণবঙ্গে আসানসোলে ৫.৪ মিলিমিটার, বর্ধমানে ২৪.৮ মিলিমিটার, কাঁথিতে ১.৪ মিলিমিটার, কৃষ্ণনগরে ২.০ মিলিমিটার, মেদিনীপুরে ২৩.৮ মিলিমিটার, পানাগড়ে ৩.৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। সবথেকে বেশি বৃষ্টি হয়েছে হলদিয়ায়। বৃষ্টির পরিমাণ ৩২.২ মিলিমিটার।তবে এই জায়গায় দাঁড়িয়ে বৃষ্টির তেমন কোনো পূর্বাভাস নেই বললেই চলে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: