West Bengal

চলতি সময়ে বেকারত্ব কাটাতে যুবসম্প্রদায়ের জন্য নয়া সুযোগ রাজ্যের পক্ষ থেকে

রাজ্যের বেকার যুবক-যুবতীদের আর্থিক ভাবে স্বাবলম্বী করে তোলার বিশেষ প্রকল্প 'কর্মসাথী'

পল্লবী কুন্ডু : সমাজের যুবসম্প্রদায়ের জন্য সুযোগ-সুবিধা নিয়ে আসছে রাজ্য। রাজ্যের বেকার যুবক-যুবতীদের আর্থিক ভাবে স্বাবলম্বী করে তোলার বিশেষ প্রকল্প ‘কর্মসাথী’-র কথা কিছু দিন আগেই ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ, বৃহস্পতিবার সে প্রকল্পের সরকারি গেজেট নোটিফিকেশন হল। করোনা সংকটে ও লকডাউনের জেরে সারা দেশেরই অর্থনীতি ও কর্মসংস্থান তলানিতে। এমতাবস্থায় বহু মানুষ কর্মহীনতায় ভুগছে।তাই তারা যাতে নিজেদের কোনো কাজ শুরু করতে পারে সে কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত রাজ্যের।

সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে যা জানা গেছে, এমএসএমই দফতরের তরফে বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলা হয়েছে, রাজ্যের ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সের যে কেউ নিজের কোম্পানি স্থাপন করার জন্য রাজ্য সরকারের কাছ থেকে আর্থিক সাহায্য পাবে। সর্বাধিক ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত সফ্ট লোন দেওয়া হবে। অষ্টম শ্রেণি উত্তীর্ণ যে কেউ আবেদন করতে পারবেন এবং তারপর আবেদনপত্র খতিয়ে দেখে, তদারকি করে ঋণদানের ব্যবস্থা করার জ‌ন্য প্রতি জেলায় নির্দিষ্ট ‘স্ক্রিনিং কমিটি’ করা হয়েছে। জেলাশাসকের পাশাপাশি জেলার কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাঙ্কের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার, জেলা হ্যান্ডলুম অফিসার, মত্‍স্য, কৃষি বিপণন, উদ্যানপালন প্রভৃতি দফতরের আধিকারিকরা ওই কমিটিতে রয়েছেন।

বুধবার হুগলিতে জেলাশাসকের দফতরে ওই কমিটির বৈঠক হয়েছে। কলকাতা পুরসভার আওতায় অবশ্য এই কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে থাকবেন এমএসএমই-র ডিরেক্টর। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অন্যতম প্রকল্প এটি। মুখ্যমন্ত্রীর এই কর্মসাথী প্রকল্প তরান্বিত করার জন্য নবান্নের নির্দেশে প্রতিটি জেলার জেলাশাসক জেলাস্তরে বৈঠক শুরু করে দিয়েছেন বলে জানা গেছে।এর আগেও সাধারণ তথা সমাজের যারা মূল কান্ডারি সেই যুবসম্প্রদায়ের জন্য তাদের কথা মাথায় রেখেই রাজ্য এনেছিল একাধিক প্রকল্প।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: